আলমডাঙ্গায় ধান কাটাকে কেন্দ্র করে তিনজন আটক

প্রকাশিত: ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০২০

আলমডাঙ্গার ছত্রপাড়া গ্রামে রাতের বেলা অন্যের জমি থেকে ধান কেটে নেওয়াকে কেন্ত্র করে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশ বাদির আরজির প্রেক্ষিতে গ্রামের একটি বাড়ি থেকে কাটা ধানও উদ্ধার করেছে। মঙ্গলবার রাতে ও সকালে ওই তিন জনকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ছত্রপাড়া গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে নাজমুল ইসলামের মনাখোসা মাঠের ৮ কাঠা জমির কেটে রাখা ধান সোমবার রাতে চুরি যায়। নাজমুল চুরির ঘটনায় একই গ্রামের নেকবার আলীর তিন ছেলে আব্দুর রহিম, আলম হোসেন ও আলী হোসেনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ মঙ্গলবার রাতে আলী হোসেন ও আব্দুর রহিমকে এবং সকালে আরও আলম হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। দুপুরে তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ছত্রপাড়া গ্রামের বহু বছরের পুরানো হিন্দু সম্পত্তির ভোগদখলকে ঘিরে গ্রামের বিবাদমান দুইটি গ্রুপ রয়েছে। এই দুইটি গ্রুপ একাধিক সময়ে খুন-খারাবিতেও জড়িয়ে পড়ার ঘটনা ঘটিয়েছে। একে অপরকে মিথ্যা মামলায়ও জড়ানোর ঘটনা ঘটেছে। মাঠ থেকে ধান চুরির ঘটনায় বাদি ও বিবাদি ওই দুইটি বিবাদমান গ্রুপের লোকজন বলেও জানিয়েছে স্থানীয় সূত্র গুলো।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সফিক বলেন, মামলার ভিত্তিতে তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এখনও তদন্ত চলছে। তদন্তে ধান যার বলে জানা যাবে তাকে দিয়ে দেওয়া হবে।

গ্রেফতার আলী হোসেনের পরিবার দাবি করেছে, মাঠ থেকে নাজমুলের যে ধান চুরি হয়েছে সেটা ধানি গোল্ড জাতের ধান। আর আলম হোসেনের বাড়ি থেকে পুলিশ যে ধান উদ্ধার করেছে তা পাইনার হাইব্রীড জাতের ধান। এই ধানও তিন দিন আগে তাদের জমি থেকে কেটে বাড়িতে এনে রাখেন বলে জানান।